হাসপাতাল ছেড়েছেন ধর্ষণের শিকার ঢাবি ছাত্রী

  • ৯-জানুয়ারী-২০২০ ০৭:০৯ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

রাজধানীর কুর্মিটোলা এলাকায় ধর্ষণের শিকার হওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রীকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। চিকিৎসায় তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার(৯ জানুয়ারি) দুপুর ১২টায় ঢামেক কর্তৃপক্ষ তাকে এ ছাড়পত্র দেয়। ছাড়পত্র পেয়ে আজই তিনি হাসপাতাল ত্যাগ করেছেন।

ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। ওই ছাত্রী সব ধরনের ট্রমা ও সমস্যা কাটিয়ে এখন সুস্থ আছে। তাই বোর্ড চিকিৎসকদের পরামর্শে তাকে রিলিজ দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

চিকিৎসায় শারীরিক উন্নতি হওয়ায় আপাতত তাঁর হাসপাতালে থাকার দরকার না হলেও চিকিৎসার প্রয়োজনে আগামী সপ্তাহে তাকে আসতে বলা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ঢাবির দ্বিতীয় বর্ষের ওই ছাত্রী শেওড়ায় বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার পথে গত রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুর্মিটোলা বাসস্ট্যান্ডের কাছে ধর্ষণের শিকার হন। একপর্যায়ে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। রাত ১০টার দিকে যখন তাঁর জ্ঞান ফেরে, তখন সেখান থেকে তিনি বান্ধবীর বাসায় গিয়ে ঘটনা খুলে বলেন। পরে রাত ১২টার দিকে তাঁকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়। পরদিন ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন তাঁর বাবা। এদিকে ওই ধর্ষণের ঘটনায় মজনু নামে এক ভবঘুরেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। পরে তাকে ডিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

Ads
Ads