করোনার প্রভাবে প্রায় ৩ কোটি শিক্ষার্থীর স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে

  • ৫-মার্চ-২০২০ ১০:৫০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::

করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে বিশ্বের প্রায় ৩০ কোটি শিক্ষার্থীর ওপরে। ভাইরাসটি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ায় সংক্রামন আতঙ্কে শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে আইএমএফ। এরই মধ্যে করোনাভাইরাসে প্রায় ৯৫ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৩২০০। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বিশ্বের প্রায় ৮০টি দেশে এই ভাইরাস ছড়িয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর গ্যাভিন নিউসম রাজ্যের প্রথম করোনভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর পরে সেখানে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। করোনায় এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা ১১ জনে দাঁড়িয়েছে। করোনায় আক্রান্ত রোগী আছে এমন একটি যাত্রীবাহী ক্রুজ শিপকে সমুদ্রের মাঝে আটকে রাখা হয়েছে। জাহাজটিতে বেশ কয়েকজন যাত্রী ও নাবিকের শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা গেছে।
 
এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃত্যু ও সংক্রমণের সিংহভাগই চীনে। যেখানে ভাইরাসটি গত বছরের শেষের দিকে প্রথম ছড়িয়েছিল। ভাইরাসটি যাতে ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য চীনের একটি শহরকে পুরো দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে। সেখানকার কারখানা ও স্কুলগুলি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে অন্যান্য দেশগুলিও বিভিন্ন প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। বুধবার ইউনেস্কো বলেছে যে, এরই মধ্যে বিশ্বের ১৩ টি দেশ স্কুল বন্ধ করেছে। এর ফলে ২ কোটি ৯০ লাখ শিক্ষার্থী স্কুলে যেতে পারছে না, ফলে তাদের শিক্ষাগ্রহণ ব্যহত হচ্ছে।

বুধবার ইতালিতে স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলি মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। চীনের বাইরে সবচেয়ে মারাত্মক সংক্রামন ঘটেছে ইতালিতে। সেখানে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসাবে মৃত্যুর সংখ্যা ১০৭।

চীনের বাইরে করোনা ছড়িয়ে পড়া আরেক দেশ দক্ষিণ কোরিয়া্ সেখানে প্রায় ৬ হাজার করোনা রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে। সেখানে স্কুল-কলেজগুলি ২৩ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

জাপানে প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে সেখানে মার্চ এবং বসন্ত বিরতি দিয়ে স্কুলগুলিকে ক্লাস বাতিলের আহ্বান জানিয়েছেন। তাঁর এই আহ্বানের পরে দেশটির প্রায় সমস্ত স্কুল বন্ধ হয়ে গেছে।

Ads
Ads