ঝুপড়ি ঘরে বসবাস, দশমিনায় সংসারের হাল ধরেছেন বৃদ্ধা লাল বিবি

  • ১১-মার্চ-২০২০ ০৪:১০ অপরাহ্ন
Ads

:: দশমিনা প্রতিনিধি ::

যে বয়সে থাকবে আরাম আয়শে  সেই বয়সে সকাল হলে লাল বিবি অন্ন’র সন্ধানে এ বাড়ি ও বাড়ি এমনকি এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে ছুটে বেড়ায় । সন্ধ্যা হলে নিজ আশ্রয়ে এসে পৌছে  বেঁচে থাকার লড়াইয়ে ক্লান্ত লাল বিবি। আর ওই আশ্রয় টুকু হলো পাখির বাসার মত একটি ঝুপড়ি ঘর। জরাজীর্ন ঘরটি বৃষ্টি হলে পড়ে পানি, শীতল হাওয়ায় রাতে হাড়কাপানো অবস্থায় রাতটুকু পার।

পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার সদর ইউনিয়নের পূর্ব  দিকে  অবস্থিত ২নং ওয়ার্ডের বৃদ্ধ লাল বিবি সেকান্দার দম্পতি। সরেজমিনে গিয়ে ভুক্তভোগী ও স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে এরকম চিত্র পাওয়া যায়। 

ষাটর্ধো লাল বিবি বলেন, আমার  স্বামী সেকান্দার  ১০ বছর আগে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে ঘরে পরে রয়েছে। একমাত্র মেয়ের বিয়ে হয়েছে। তার সংসার চলে টানপড়োনে। ভিটি ছাড়া আর কোন জমাজমি নাই।  খয়রাত করে (ভিক্ষা) যা পাই তা দিয়ে সংসারই চলেনা এর মধ্যে ভাঙ্গাচোড়া ঘরে মেরামত করি কি দিয়ে। হুনছি মানষের কাছে সরকার ঘর দ্যায়।  চেয়ারম্যান মেম্বার গো কাছে বহুত গেছি হ্যারা আমারে ঘর দেয় নাই।

ওই এলাকার বাবুল হোসেন বলেন, বৃদ্ধ সেকান্দার লাল বিবির পরিবারটি মানবেতর জীবন যাপন করছে। তাদের একটি ঘর খুবই প্রয়োজন। সদর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যড ইকবাল মাহামুদ লিটন বলেন সেকান্দার পরিবারটি খুব অসহায়, ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বয়স্ক ভাতা সহ বিভিন্ন সহায়তা করে আসছি। পরিবারটির একটি ঘরের ব্যবস্থা হলে ভালো হত।

Ads
Ads