আতঙ্কিত না হয়ে প্রস্তুতি নিন : মোদি

  • ১৫-মার্চ-২০২০ ১২:৫০ অপরাহ্ন
Ads

:: আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::

বিশ্বব্যাপী মহামারি রূপ নেওয়া করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে কী করা যায় সে বিষয়ে কর্মপন্থা ঠিক করতে ভিডিও কনফারেন্সে মিলিত হয়েছেন সার্কভুক্ত আট দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানরা।

সেখানেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রাণঘাতি কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সার্ক জাতিগুলোর প্রতি ভারতের বার্তা হলো, ‘আতঙ্কিত না হয়ে প্রস্তুতি নিন’। বিশ্ব জনসংখ্যার এক পঞ্চমাংশ বাস করে সার্ক অঞ্চলে। সুতরাং এই মহামারি মোকাবিলায় প্রস্তুতি নিতেই হবে।

মোদি বলেন, ‘যদিও এখন পর্যন্ত সার্ক অঞ্চলে মাত্র ১৫০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তবুও আমাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে। সার্ক অঞ্চলে স্বাস্থ্যসেবার সুযোগ এমনিতেই একটু কম। সুতরাং আমাদেরকে সম্মিলিতভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে। এবং একসঙ্গেই সফলতাও পেতে হবে।’

মোদি বলেন, ‘প্রস্তুতি নিন কিন্তু আতঙ্কিত হবেন না, এটাই আমাদের মন্ত্র। আমরা করোনাভাইরাস নিয়ে কোনো অবহেলা করিনি। তবে আবার তড়িঘড়ি করেও কিছু করিনি। আমরা বুঝেশুনে এবং সুদৃঢ় কৌশলে পদক্ষেপ নিয়েছি। জানুয়ারির মাঝামাঝি থেকে আমরা বিদেশ থেকে আগতদের স্ক্রিনিং শুরু করেছি। একের পর এক ঠাণ্ডা মাথায় পদক্ষেপ নেওয়ার কারণে আতঙ্ক ছড়ায়নি।’

মোদি আরও জানান, আমরা আমাদের স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে জোরদার করেছি এবং মেডিকেল স্টাফদের প্রশিক্ষণও দিচ্ছি।

কভিড-১৯ রোগ বৈশ্বিক মহামারী আকার ধারণ করার প্রেক্ষাপটে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আহ্বানে আজ রবিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় শুরু হয়েছে এই ভিডিও কনফারেন্স।

ভিডিও কনফারেন্সে মোদির সঙ্গে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে, মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মোহাম্মদ সলিহ, শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি গোটাবে রাজাপাকসে, আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের স্বাস্থ্য উপদেষ্টা জাফর মির্জা।

Ads
Ads