টাঙ্গাইলে মাছ শিকারের জনপ্রিয় ফাঁদ ‘ধিয়াল’

  • ২৩-Jul-২০১৮ ০৬:০০ অপরাহ্ন
Ads

বর্ষা মৌসুম শুরুতেই টাঙ্গাইলের নদী-নালা,খাল বিলে বিচরণ করছে নানা প্রজাতির দেশি জাতের ছোট মাছ। আর এসব মাছ সহজ পদ্ধিতে ধরতে বাঁশের তৈরি ‘ধিয়াল’ বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন হাটবাজারে ওইসব ‘ধিয়াল’ কেনার এখন ধুম পড়েছে।দেশি প্রজাতির বিভিন্ন প্রকার মাছ ধরার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে বাঁশের তৈরি বিশেষ এই ফাঁদ। সহজ পদ্ধিতে মাছ ধরার এ ফাঁদ ‘ধিয়াল’ নামে পরিচিত।আদি কাল থেকে গ্রামাঞ্চলে মাছ ধরার সবচেয়ে আদি উপকরণ হিসেবে এটি ব্যবহার হয়ে আসছে।

 

জানাগেছে,বর্ষা মৌসুম শুরু থেকে জেলার বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলের খাল-বিল ও নদী-নালায় ধিয়াল দিয়ে মাছ ধরার ধুম পড়ে যায়। যা চলতে থাকে ভাদ্র-আশ্বিন মাস পর্যন্ত। তাই এসব অঞ্চলের হাটবাজারে মাছ ধরার উপকরণ হিসেবে প্রতিদিন বিক্রি হচ্ছে বাঁশের তৈরি এ ধিয়াল।

সরেজমিনে সখিপুর উপজেলার বড়চওনা বাজারে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে ধিয়াল ছাড়াও মাছ ধরার বিভিন্ন প্রকার উপকরণ বিক্রির বিরাট হাট গড়ে উঠেছে।পাহাড়ি অঞ্চলের বহেড়াতৈল বাজারটি নদীর তীরবর্তী হওয়ায় মাছ ধরার উপকরণের সবচেয়ে বড় মোকাম। এখান থেকে মাছ ধরার উপকরণসহ মাছ ব্যবসায়ীরা পাইকারি দরে মাছ কিনে নিয়ে বিভিন্ন হাট-বাজারে বিক্রি করে থাকেন।এছাড়াও টাঙ্গাইলের কালিহাতী,ভূয়াপুর,গোপালপুর,ধনবাড়ি,মধুপুর উপজেলার গ্রাম অঞ্চলের প্রায় ২০ ভাগ মানুষ ধিয়ালসহ বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে মাছ শিকার করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকে।

কথা হয় ধিয়াল দিয়ে মাছ শিকারী জাফর মিয়ার সাথে তিনি বলেন, এ উপকরণ দিয়ে বিভিন্ন ধরণের দেশীপ্রজাতির মাছ ধরে প্রতিদিন ৬০০-৮০০ টাকা বিক্রি করে থাকি।যা দিয়ে আমার সংসার চলে।আমার মত অনেকেই বর্ষা মৌসুমে মাছ ধরে জীবকিা নির্বাহ করে থাকে। বাজাওে দেশীয় ছোট মাছের বেশ কদর রয়েছে বলেও জানান তিনি।

Ads
Ads