বেরোবিতে সাংবাদিক মারধরের ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

  • ৩-ফেব্রুয়ারী-২০১৯ ০৩:৪৮ অপরাহ্ন
Ads

:: বেরোবি প্রতিনিধি ::

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে দৈনিক সংবাদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি আল আমীন হোসেন ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিনিধি সৌম্য সরকারকে মারধরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির ব্যানারে ক্যাম্পাসের শেখ রাসেল মিডিয়া চত্বরে এ মানববন্ধন পালিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগের শিক্ষার্থীরা একাত্মতা প্রকাশ করে মানববন্ধনে অংশ নেয়।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহফজুল ইসলাম বকুলের সঞ্চালনায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন পালন করে তারা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সন্ত্রাসী মাহমুদউল ইসলাম জয় ক্যাম্পাসে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। প্রতিনিয়ত সাধারণ শিক্ষার্থীদের নির্যাতন করে চললেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। গত২৯ জানুয়ারী শহীদ মুখতার ইলাহী হলে ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসী মাহমুদ-উল ইসলাম জয় এবং তার দুই সহযোগি রাসেল রানা ও মাহফুজুর রহমান খোকন পাশবিক কায়দায় দুই সাংবাদিককে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করে। যা অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক।

বক্তারা আরো বলেন, শিক্ষাঙ্গনের মতো পবিত্র জায়গায় এধরনের সন্ত্রাসী কার্যক্রম চলতে পারেনা। তাই, ক্যাম্পাসে পড়ালেখার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে মাহমুদ-উল ইসলাম জয়সহ তার সহযোগিদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তারা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, দৈনিক যুগান্তরের রংপুর ব্যুরো প্রধান ও আমাদের প্রতিদিন’র সম্পাদক মাহবুব রহমান, রিপোর্টার্স ক্লাব, রংপুরের কোষাধ্যক্ষ ফরহাদুজ্জামান ফারুক, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সহ সভাপতি মোবাশ্বের আহমেদ, সদস্য জাকির হোসেন রুম্মন, জাগো নিউজের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সজীব হোসাইন, ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি যুগেশ ত্রিপুরা, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী শামীম হোসেন, লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ডিবিসি নিউজের রংপুর ব্যুরোপ্রধান নাজমুল ইসলাম নিশাত, সময় টেলিভিশনের রংপুর প্রতিনিধি হেদায়াতুল ইসলাম বাবু, জাগো নিউজের স্টাফ রিপোর্টার জিতু কবীর, প্রথম আলো’র ফটো সাংবাদিক মইনুল ইসলাম, কালেরকন্ঠের আদর রহমান প্রমুখ।

এদিকে, এ হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদ- উল ইসলাম জয়, তার সহযোগি রাসেল রানা ও মাহফুজুর রহমানের নাম উল্লেখ করে রংপুর তাজহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী সাংবাদিক আল-আমীন হোসেন।

মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে তাজহাট থানার ওসি শেখ রোকনুজ্জামান বলেন, মামলার প্রেক্ষিতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এছাড়া, একই ঘটনায় গত ৩০ জানুয়ারি একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এবিষয়ে জানতে চাইলে তদন্ত কমিটির আহবায়ক ফেরদৌস রহমান বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্তকমিটি সভা করেছে অতিদ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

Ads
Ads